ধামরাইয়ে পূর্ব শুত্রুতার জের ধরে হামলা, মেম্বারসহ আহত ৪

Img

ঢাকার ধামরাইয়ে পূর্ব শুক্রতার জের ধরে রোয়াইলর ইউনিয়নের ৭নম্বর ওয়ার্ডে আওয়াম লীগের সভাপতি ও মেম্বার  সরোয়ার মোল্লাসহ চার জনের উপর হামলা করেছে সন্ত্রাসীরা। এদের মধ্যে একজনের অবস্থা অংশকাজনক হলে তাকে উন্নত চিহিৎসার জন্য সাভারের একটি হাসপাতালে পাঠায়েছে বলে জানাগেছে। 

এঘটনায় মেম্বার সরোয়ার মোল্লা বাদী হয়ে ধামরাই থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।

মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার রোয়াইল ইউনিয়নের ফরিঙ্গা গ্রামের বিমল চন্দ্র এর বাড়ির সামনে ঘটনাটি ঘটে। 

আহতরা হলেন, মোঃ সারোয়ার মোল্লা(৪৫), মোঃ আজিজুল মোল্লা, সিরাজুল মোল্লা, নীলচান মোল্লা।

অভিযুক্তরা হলেন- মোঃ পলাশ মোল্লা(৩৮), কুদ্দুস মোল্লা (৫৫), ইয়াকুব মিয়া(৫৮),মীর মোহাম্মদ আলী(৫০),মিজান মোল্লা(৫৭), বকুল মোল্লা(৩৫), হাদিস মোল্লা(৫০), ওয়াসিম মোল্লা(৪০),হক মিয়া(৪২)।

এলাকাবাসি ও অভিযোগ সূত্রে জানাযায়,  দুপুরে ফুড ফর দা হাংরী একটি দাতা সংস্থার ত্রাণ শেষে বাড়ি ফেরার পথে বিমল চন্দ্র এর বাড়ির সামনে পৌছালে পূর্ব শক্রতার জের ধরে আগে থেকে উৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা আমাকে তাদের হাতে থাকা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা করে। পরে আমার ডাক চিৎকার শুনে আমার ভাই ভাতিজা এগিয়ে আসলে তাদের উপরেও হামলা করলে আহত হয়ে নীলচান মোল্লা মাটিতে লুটিয়ে পড়ে।পরে এলাকার লোকজন এগিয়ে আসলে হামলা কারীরা পালিয়ে যায়। এই সময় তারা আহতদের উদ্ধার করে ধামরাই সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে নীলচান মোল্লার অবস্থা খারাপ হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সাভারের একটি হাসপাতালে পাঠানো হয়। 

এই ব্যাপারে রোয়াইল ৭নম্বর ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মেম্বার  সরোয়ার মোল্লা বলে, এর আগে আমাকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জাযগায় হত্যার হুমকি দিলে আমি নিজে ধামরাই থানায় এসে একটি সাধারণ ডাইরি করেছিলাম। এরপর আজ আমাকে হত্যার করার উদ্ধেশ্যে রাস্তা একা পেয়ে হামলা করেছে।

এব্যাপারে ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জসিম উদ্দীন খান প্রবাসীর দিগন্তকে বলেন, মারামারির ঘটনায় একটি অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার