দুবাইয়ে এক ব্রিটিশ মায়ের জেল

আসাদুজ্জামান বুলবুল | নিজস্ব প্রতিবেদক : অগাস্ট ১২, ২০১৮

ডাঃ ইলি হলম্যান গত ১৩ই জুলাই তার চার বছরের মেয়ে বিবিকে নিয়ে দুবাইয়ে বেড়াতে গিয়েছিলেন। তিন সন্তানের মা ডাঃ হলম্যান ইংল্যান্ডের কেনটের বাসিন্দা পেশায় সে একজন ডেন্টিস্ট।

১৩ই জুলাই দুবাই বিমান বন্দরে অবতরণের পর তাকে পরতে হয় বিপাকে। আকাশে থাকা অবস্তায় আমিরাত এরোপ্লেন কতৃপক্ষ সরবরাহ কৃত এক গ্লাস রেড উয়াইন পান করে ছিলেন এবং বোতলটি তার কাছে ছিল। এছাড়া তিনি এয়ারপোর্টে নেমে সেখানে তার মোবাইলে ফিল্মিং করছিলেন আর এতেই বাধে সকল বিপত্তি।

দুবাই বিমান বন্দর ক্তৃপক্ষ দাবী করেন ডাঃ হলম্যান তাদের সাথে মদ্যপ অবস্থায় অসদাচরণ করেছেন। এমন কি সে অন্য সকল যাত্রীর অনুমতি ব্যতিত তাদের ফিল্মিং করেছেন যেটা দুবাইয়ের আইনে বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য।

ডাঃ হলম্যান দাবী করেন সে তখনই ফিল্মিং করেছেন যখন ইমিগ্রেশন ক্তৃপক্ষ তার সাথে খারাব ব্যবহার করেছেন। আর সে যে রেড উয়াইন পান করেছেন তা আমিরাত এরোপ্লেন ক্তৃপক্ষ তাকে বিমানে থাকা অবস্থায় সরবরাহ করেছে। কিন্তু দুবাই এয়ারপোর্ট ক্তৃপক্ষ তার কথা বিবেচনায় না নিয়ে তার চার বছরে মেয়েকে সহ অত্যান্ত গরম সেতসেতে মেঝের এক জেলে তাদেরকে প্রেরন করে। সেখানে তার মেয়েকে জেলখানার মেঝেতে পয়নিষ্কাশন করতে হয়েছে।

এখন মা এবং মেয়ে দুজনেই জামিনে আছে তবে এই মামলা শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদেরকে দুবাই না ছাড়ার আদেশ প্রদান করা হয়েছে। এতে ডাঃ হলম্যানকে অন্তত ১২ মাস দুবাইতে থাকতে হতে পারে। ডাঃ হলম্যান এবং তার স্বামী গ্যারি এই সমস্যা সমাধানে ব্রিটিশ সরকারের সহায়তা কামনা করেছেন।

তথ্য:

বিভাগ:

প্রকাশ: অগাস্ট ১২, ২০১৮

প্রতিবেদক: আসাদুজ্জামান বুলবুল

পড়েছেন: 864 জন

মন্তব্য: 0 টি