দক্ষিণ আফ্রিকায় এক দল সন্ত্রাসী অপহরনের পর বাংলাদেশি এক যুবককে পুড়িয়ে হত্যা করেছে । নিহত অনিক (২২) নরসিংদী জেলার পলাশ উপজেলার বাসিন্দা। বুধবার অনিকের পরিবার এই তথ্য জানতে পারে । বিকেলে ঘোড়াশাল পৌর এলাকার ভাগদী গ্রামে অনিকের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

নিহত অনিকের বাবা অহেদ আলী জানান, দক্ষিণ আফ্রিকার জোহানসবার্গ ডেবন শহরের একটি শপিংমলে কাজ করতো অনিক। গত ১২ এপ্রিল (শুক্রবার) শপিংমলে কাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে সে দেশের সন্ত্রাসীরা অনিককে ধরে নিয়ে যায়। সাউথ আফ্রিকায় তার বড় ছেলে ইউসুফ পাশের একটি এলাকায় কাজ করেন।

অনিককে ধরে নিয়ে যাওয়ার খবর পেয়ে ইউসুফ ও অন্যান্য সহকর্মীরা অনিককে খুঁজতে থাকেন। অনেক খোঁজাখুঁজির পর তাকে না পেয়ে সে দেশের পুলিশের কাছে ভাই নিখোঁজের অভিযোগ করেন ইউসুফ।

অনিকের বাবা অহেদ আলী আরও জানান, গত ১৬ এপ্রিল (মঙ্গলবার) রাতে সে দেশের পুলিশ তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে অনিকের আগুনে পোড়া মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে যায়। এ সময় হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অপরাধে সাউথ আফ্রিকান গুচি নামে এক সন্ত্রাসীকে আটক করে পুলিশ। তবে কী কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে তা এখনো জানা যায়নি।

নিহত অনিকের স্বজনরা জানান, অনিক চার মাস আগে কাজের উদ্দেশে দক্ষিণ আফ্রিকায় যায়। জোহানেসবার্গ ডেবন শহরের একটি শপিংমলে কাজ করতো অনিক।