তারা মোটেই আত্মীয় ছিলেন না, তবে এখন হয়ে যাচ্ছেন

Img

নামে তাদের মিল আছে। অনেকেই ভাবতেন, পাকিস্তানের তরুণ পেসার শাহিন শাহ আফ্রিদি দেশটির কিংবদন্তি অলরাউন্ডার শহিদ আফ্রিদির কোনো আত্মীয় হয়তো হবেন।

সত্যি হলো, তারা মোটেই আত্মীয় ছিলেন না। তবে এখন হয়ে যাচ্ছেন। শহিদ আফ্রিদির বড় মেয়ে আকসা আফ্রিদিকে বিয়ে করতে যাচ্ছেন শাহিন আফ্রিদি।

শনিবার সন্ধ্যায় এ খবর চাউর হলে হইচই পড়ে যায় চারিদিকে। পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমগুলো নিশ্চিত করেছে, এটা স্রেফ গুঞ্জন নয়। শাহিন আফ্রিদির বাবা আয়াজ খান নিজে নিশ্চিত করেন, শহিদ আফ্রিদির মেয়ের সঙ্গে চলছে তার ছেলের বিয়ের কথা।

রোববার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক টুইটে শহিদ আফ্রিদিও নিশ্চিত করলেন, তার বড় মেয়ের সঙ্গে বিয়ের কথাবার্তা পাকা শাহিন আফ্রিদির। শুধু এই খবরের সত্যতা নিশ্চিতই নয়। হবু মেয়ে জামাইয়ের জন্য দোয়াও চেয়েছেন শহিদ আফ্রিদি।

আফ্রিদি তার টুইটে লিখেছেন, ‘শাহিনের পরিবার আমার মেয়ের জন্য প্রস্তাব দিয়েছে। দুই পরিবারের মধ্যে যোগাযোগ আছে। জোড়া তো স্বর্গ থেকে আসে। আল্লাহ চাইলে এই জোড়াও মিলবে। আমি দোয়া করি, শাহিন যেন তার মাঠ ও মাঠের বাইরের সাফল্য অব্যাহত রাখে।’

পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহিদ আফ্রিদি পাঁচ সন্তানের জনক। তার পাঁচ মেয়ের নাম হলো আকসা, আনসা, আজওয়া, আসমারা ও আরওয়া। এদের মধ্যে ২০ বছর বয়সী আকসা সবার বড়। তিনিই শাহিন আফ্রিদির স্ত্রী হতে চলেছেন।

এদিকে শাহিন আফ্রিদির বয়সও ২০। তিনি ২০১৮ সালের এপ্রিলে টি-টোয়েন্টি খেলার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নাম লেখান। একই বছরের ডিসেম্বরে সুযোগ পান টেস্ট ক্রিকেটেও। এখনও পর্যন্ত আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ৫৮ ম্যাচে ১১৭ উইকেট শিকার করেছেন শাহিন।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার