ডিভোর্স ছাড়াই স্বামী-সন্তান ফেলে নাসিরকে বিয়ে করেছেন তামিমা!

Img

১৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে বিয়ে করেছেন ক্রিকেটার নাসির হোসেন। গত ১৭ ফেব্রুয়ারি গায়ে হলুদ ও ১৯ ফেব্রুয়ারি হয়েছে বিবাহোত্তর সংবর্ধনাও। এরই মধ্যে অভিযোগ উঠেছে আগের স্বামীকে তালাক না দিয়েই নাসিরকে বিয়ে করেছেন স্ত্রী তামিমা তাম্মি।

শনিবার দুপুরে রাইসা ইসলাম বাবুনি নামক এক ফেসবুক ব্যবহারকারীর একটি পোস্ট ভাইরাল হয়েছে। সেই পোস্টে তামিমার স্বামী রাকিবের পক্ষে দাবি করা হয়েছে, এখনও তাদের মধ্যে বৈবাহিক সম্পর্ক রয়েছে। তাদের ঘরে রয়েছে ৮ বছর বয়সী একটি মেয়ে সন্তানও। তালাক না দিয়ে নতুন বিয়ে করায় তামিমার বিরুদ্ধে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন রাকিব।

ভাইরাল হওয়া ওই পোস্টে রাকিবের সঙ্গে নাসিরের একটি অডিও কলও রয়েছে। যেখানে নাসির রাকিবকে ফোন দিয়ে জানতে চান কেনো তিনি জিডি করেছেন। এদিকে ২০১১ সালে রাকিবের সঙ্গে তামিমার বিয়ে হয়। বর্তমানে সৌদি এয়ার লাইন্সের কেবিন ক্রু হিসেবে কর্মরত রয়েছেন তামিমা।

পূর্ববর্তী সংবাদ

নারীরা কৌশলে যে মিথ্যাগুলোর আশ্রয় নেন

নারীদের মনস্তত্ত্ব বুঝতে গিয়ে বহু মনীষীও হিমশিম খেয়েছেন। আসলে তারা কি চান, সে বিষয়টা কোন কোন পুরুষ হয়তো সারা জীবনেও বুঝে উঠতে পারেন না। নারীদেরও অবশ্য বহু অভিযোগ রয়েছে পুরুষদের বিরুদ্ধে। আবার কিছু নারীরা পরিস্থিতি বুঝে তা সামাল দেওয়ার জন্য কৌশলে মিথ্যার আশ্রয় নেন। তারা যেটা মুখে বলেন, মনে হয়তো থাকে তার বিপরীত কিছু। এখানে সে ধরনের কয়েকটি মিথ্যা তুলে ধরা হলো:

১) আমি তোমার ফোন কলের জন্য অপেক্ষা করছিলাম না।

২) আমি সত্যি তোমাকে পছন্দ করি। কিন্তু, এটা জানি না কখন তা ভালবাসায় রূপ নেবে।

৩) আমাদের একসঙ্গে বিল পরিশোধ করা উচিত। সবসময় তুমিই কেন সে ভার বহন করবে?

৪) আমার পছন্দের পুরুষটির মাথায় টাক থাকলে বা সে সুদর্শন না হলেও, তাতে কোন অসুবিধা নেই। অন্তত, সে যদি ধনী হয়, সেক্ষেত্রে আমরা একটি সুরক্ষিত জীবনতো পাবো।

৫) আমি কখনোই তোমার স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করবো না। কথায় কথায় খুঁত ধরবো না। তুমি যেমনটা চাইবে, তেমনটাই হবে।

৬) তুমিই একমাত্র পুরুষ যাকে আমি সারাটি জীবন ধরে চেয়েছি।

৭) তোমার কোন ভুল নেই। আমার মনে হয়, ভুলটা আমারই।

৮) আমার শ্বশুর বাড়ির লোকজনের সঙ্গে আমি সবচেয়ে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। তারা তো আমারই পরিবার।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার