টেকনাফের পাহাড়ি এলাকায় বন্দুকযুদ্ধে নিহত ২

Img
প্রতীকী ছবি

কক্সবাজারের টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দু’জন নিহত হয়েছেন।

টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের দমদমিয়া পাহাড়ি এলাকায় শুক্রবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে ২০ হাজার ইয়াবা, পিস্তল ও গুলি উদ্ধার করা হয়েছে বলে র‌্যাব জানিয়েছে।

নিহতদের নাম কেফায়েত উল্লাহ ও কোরবান আলী প্রকাশ। তাদের বিরুদ্ধে মাদক ও অস্ত্র আইনে একাধিক মামলা রয়েছে বলে জানা জানা গেছে।  

এ বিষয়ে কক্সবাজার র‌্যাব-১৫ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) এএসপি নিত্যনন্দন দাশ জানান, মাদক ও অস্ত্র নিয়ে একটি ডাকাত দল দমদমিয়া পাহাড়ে অবস্থান করছে এমন তথ্য পেয়ে র‌্যাব সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় ডাকাত দলের সদস্যরা গুলি চালাতে থাকে। আত্মরক্ষায় র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। গোলাগুলির পর ঘটনাস্থল থেকে দু’জনের মরদেহ পাওয়া যায়। এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে ২০ হাজার ইয়াবা, দুটি পিস্তল ও গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

পূর্ববর্তী সংবাদ

মাঝ আকাশে বিমানের মধ্যেই যাত্রীর আত্মহত্যা

মাঝ আকাশে বিমানের মধ্যেই আত্মহত্যা করেছেন এক যাত্রী। তিনি মিশর থেকে রাশিয়াগামী একটি ফ্লাইটে ফিরছিলেন। ধারণা করা হচ্ছে বিমানের টয়লেটে তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

খালিজ টাইমসের প্রতিবেদনে জানা যায়, মিশরের শার্ম এল-শেখ রিসোর্ট থেকে যাত্রা করা এস৭ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে করে রাশিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় সামারা শহরে ফিরছিলেন ওই যাত্রী। ফ্লাইট ছাড়ার কিছুক্ষণ পরই তিনি টয়লেটে যান। এরপর এক ফ্লাইট পরিচালক তাকে প্লেনের বাথরুমে অচেতন অবস্থায় দেখতে পান।

এই ঘটনার পর বিমানটি কায়রোতে জরুরি অবতরণ করে। তবে ততক্ষণে চিকিৎসকরা ওই যাত্রীকে আর বাঁচাতে পারেননি। পরবর্তীতে ওই একই বিমানে করে তার মরদেহ দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে। ওই যাত্রীর পরিচয় প্রকাশ করা হয়েছে।

বাজা টেলিগ্রাম নিউজ চ্যানেল জানিয়েছে, তার নাম আলেক্সান্ডার, বয়স ৪৮ বছর। ওই যাত্রী সম্ভবত গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার