ত্রিদেশীয় সিরিজে ইতিমধ্যে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ। ফলে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচটি হয়ে দাঁড়িয়েছে কেবল আনুষ্ঠানিকতার। তবে এ ম্যাচের আগে দারুণ এক মাইলফলক ছোঁয়ার অপেক্ষায় দুই টাইগার মাশরাফি বিন মুর্ত্তজা ও সাকিব আল হাসান।

অধিনায়ক হিসেবে উইকেটের সেঞ্চুরির পথে মাশরাফি। ৭৫ ম্যাচে বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দিয়ে ইতোমধ্যেই তুলে নিয়েছেন ৯৭টি উইকেট। আগামীকাল আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে আর তিনটি উইকেট থলিতে পুড়তে পারলেই দেশের প্রথম অধিনায়ক ও বোলার হিসেবে করবেন উইকেটের সেঞ্চুরির অনন্য রেকর্ড। ওডিআই ক্রিকেটে একশ’র বেশি উইকেট আছে মাত্র তিন অধিনায়কের।

অন্যদিকে সাকিব যে রেকর্ডটির সামনে দাঁড়িয়ে, আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে মাত্র ১টি উইকেট নিলেই বাংলাদেশের দ্বিতীয় বোলার এবং একমাত্র স্পিনার হিসেবে ওয়ানডেতে ২৫০ উইকেটের মাইলস্টোন স্পর্শ করবেন তিনি।

শুধু তাই নয়, আর ১ উইকেট পেলে ক্রিকেট বিশ্বের পঞ্চম অলরাউন্ডার হিসেবে ওয়ানডেতে ৫ হাজার রান এবং ২৫০ উইকেট শিকারের কীর্তি গড়বেন সাকিব। এখন পর্যন্ত এ তালিকায় নাম লিখিয়েছেন সনাৎ জয়াসুরিয়া, শহীদ আফ্রিদি, জ্যাক ক্যালিস ও আবদুর রাজ্জাক।

তবে দ্রুততম সময়ে এ ডাবল ছোঁয়ার অপেক্ষায় সাকিব। ওয়ানডেতে ৫ হাজার ৬৬৭ রান করা এ অলরাউন্ডার খেলেছেন ১৯৭ ম্যাচ। দুই পেস অলরাউন্ডার রাজ্জাক ও ক্যালিস নিজেদের ২৯৬তম ম্যাচে ৫ হাজার রান ও ২৫০ উইকেট নেয়ার কীর্তি গড়েন। আর দুই স্পিন অলরাউন্ডার জয়াসুরিয়া ৩০৪ ম্যাচে এবং আফ্রিদি ২৭৩ ম্যাচে অসাধারণ এ ডাবলের কৃতিত্ব দেখান।

তৃতীয় বাঁহাতি স্পিনার হিসেবে ওয়ানডেতে ২৫০ উইকেটের স্বাদ পাওয়ার দ্বারপ্রান্তে সাকিব। ৩২৩ উইকেট নিয়ে সবার ওপরে রয়েছেন জয়াসুরিয়া। ড্যানিয়েল ভেট্টোরি ৩০৫ উইকেট নিয়ে রয়েছেন দুইয়ে।

অনন্য সেই লক্ষ্য ছুঁতেই হয়তো গুরুত্বহীন ম্যাচটিতে মাঠে নামবেন এই দুই টাইগার। যেটি ডাবলিনে শুরু হবে বুধবার (১৫মে) বাংলাদেশ সময় বিকেল পৌনে ৪টায়।