চাঞ্চল্যকর রেনু হত্যা মামলার ৫ আসামির হাইকোর্টে জামিন

Img

রাজধানীর উত্তর বাড্ডায় সন্তানকে স্কুলে ভর্তি করাতে যেয়ে গণপিটুনিতে নিহত তাসলিমা বেগম রেনু হত্যা মামলার ৫ আসামি হাইকোর্ট থেকে জামিন পেয়েছেন। 

জামিন পাওয়া ৫ আসামি হলেন- মো. রাজু ওরফে রুম্মান হোসেন, রিয়া বেগম, বাচ্চু মিয়া, মোহাম্মদ শাহীন ও মুরাদ মিয়া।

এদের মধ্যে মো. রাজুকে সোমবার জামিন দেন বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি মো. বদরুদ্দোজার হাইকোর্ট বেঞ্চ। অন্য চারজন বিভিন্ন সময়ে হাইকোর্টের বিভিন্ন বেঞ্চ থেকে জামিন নেন। রাজুর পক্ষে আইনজীবী ছিলেন শফিকুল আলম মাহমুদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. মো. বশির উল্লাহ। 

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. মো. বশির উল্লাহ আজ মঙ্গলবার জানান, এ জামিন বাতিল চেয়ে আপিল বিভাগে আবেদন করা হয়েছে। গত বছর ২০ জুলাই বাড্ডা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছেলেধরা সন্দেহে তাসলিমা বেগম রেনুকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। নিজের চার বছরের মেয়েকে ভর্তি করানোর জন্য তথ্য সংগ্রহ করতে তাসলিমা বেগম রেনু ওই স্কুলে গিয়েছিলেন। চার বছরের মেয়ে ও মাকে নিয়ে রাজধানীর মহাখালীতে থাকতেন তিনি। দুই বছর আগে স্বামীর সঙ্গে তার বিচ্ছেদ হয়। তার ১১ বছরের একটি ছেলে থাকলেও ছেলেটি পিতার সঙ্গে বাড্ডাতেই থাকে। 

তাসলিমা বেগম রেনুকে হত্যার ঘটনায় তার এক আত্মীয় নাসির উদ্দিন টিটো ৪/৫শ অজ্ঞাতনামা ব্যক্তির বিরুদ্ধে বাড্ডা থানায় মামলা করেন। এ মামলায় পুলিশ রাজুসহ ১৪জনকে গ্রেপ্তার করে। এরপর তদন্ত শেষে ওইবছরের ১০ সেপ্টেম্বর রাজুসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। 

অভিযোগপত্রভুক্ত আসামিরা হলেন- মো. ইব্রাহিম ওরফে হৃদয় হোসেন মোল্লা, রিয়া বেগম ওরফে ময়না বেগম, মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ ওরফে আজাদ মণ্ডল, মোহাম্মদ কামাল হোসেন, মোহাম্মদ শাহিন, মো. বাচ্চু মিয়া, মো. বাপ্পী ওরফে শহিদুল ইসলাম, মো. মুরাদ মিয়া, মো. সোহেল রানা, আসাদুল ইসলাম, মো. বিল্লাল মোল্লা, মো. রাজু ওরফে রুম্মান হোসেন, মো. মহিউদ্দিন, মো. জাফর হোসেন পাটোয়ারী এবং ওয়াসিম ওরফে মো. অসীম আহম্মদ। এদের মধ্যে মো. মহিউদ্দিন পলাতক।
 

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার