চসিক নির্বাচন: আ’লীগের মনোনয়ন নিলেন ৪ মেয়র ও ৯৩ কাউন্সিলর প্রার্থী

Img

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রির গতকাল প্রথমদিনে মেয়র পদে ৪ জন এবং কাউন্সিলর পদে (সংরক্ষিত ওয়ার্ডসহ) ৯৩ জন মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন। গতকাল সকাল ৯টা থেকে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সম্ভাব্য মেয়র ও বিভিন্ন ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মাঝে দলীয় ফরম বিতরণ করা হয়।

এদিকে সকাল ৯টা থেকে মনোনয়ন ফরম বিক্রির কথা থাকলেও ভোর থেকে দলীয় কার্যালয়ে চট্টগ্রামের বিভিন্ন ওয়ার্ডের সাধারণ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডের মহিলা কাউন্সিলররা এবং তাদের কর্মী-সমর্থকরা ভিড় করেন। দলীয় কার্যালয় খোলার সাথে সাথে উৎসব মুখর পরিবেশে সম্ভাব্য মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা তাদের সমর্থকদের নিয়ে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন।


গতকাল চসিক নির্বাচনের জন্য আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয় থেকে মেয়র পদে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি, সাবেক বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি, নগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন, নগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম চৌধুরী এবং সাবেক মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসির জ্যেষ্ঠ সন্তান মুজিবুর রহমান। আজ মেয়র পদে দলীয় মনোনয়ন নিবেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ.জ.ম নাছির উদ্দীন।


এদিকে কাউন্সিলর পদে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন ৩২ নম্বর আন্দরকিল্লা ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর জহরলাল হাজারী ও আশীষ ভট্টাচার্য, ২১ নম্বর জামালখান ওয়ার্ড থেকে সুচিত্রা গুহ টুম্পা, ২৫ নম্বর রামপুর ওয়ার্ড থেকে আবদুর সবুর লিটন, ২৬ নম্বর উত্তর হালিশহর ওয়ার্ড থেকে মোহাম্মদ হোসেন, ১৫ নম্বর বাগমনিরাম ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর মো. গিয়াস উদ্দিন, ৯ নম্বর উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ডের জহুরুল আলম জসিম, ৫নং মোহরা ওয়ার্ড থেকে অলিদ চৌধুরী, ১৩ নম্বর পাহাড়তলী ওয়ার্ড থেকে মোহাম্মদ হোসেন হিরন, ২৪ নম্বর উত্তর আগ্রাবাদ ওয়ার্ড থেকে মো. সিরাজ, ২৮ নম্বর পাঠানটুলী ওয়ার্ড থেকে নজরুল ইসলাম বাহাদুর, ৩৪ নম্বর পাথরঘাটা ওয়ার্ড থেকে আশফাক আহমদ চৌধুরী, ৩৬ নম্বর গোসাইলডাঙ্গা ওয়ার্ড থেকে মোরশেদ আলী, ১৭ নম্বর পশ্চিম বাকলিয়া ওয়ার্ড থেকে মো. ইছহাক, ৩৩নং ফিরিঙ্গী বাজার ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব, ৬ নম্বর পূর্ব ষোলশহর ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর আশরাফুল আলম, ১০ নম্বর উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর নেছার উদ্দিন আহমদ মঞ্জু, ১৪ নম্বর লালখান বাজার ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর এ এফ কবির আহমেদ মানিক, ১১ নম্বর দক্ষিণ কাট্টলী ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর মোরশেদ আক্তার চৌধুরী, ৮ নম্বর শোলকবহর ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর মোরশেদ আলম চৌধুরী, ১৩ নম্বর পাহাড়তলী ওয়ার্ড থেকে মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন ওমর গনি এমইএস কলেজ ছাত্র সংসদের ভিপি ওয়াসিম উদ্দিন ও সিটি কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক জিএস আবদুস সালাম।


এছাড়া সংরক্ষিত ওয়ার্ড থেকে মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন বর্তমান কাউন্সিলর আনজুমান আরা বেগম, সাবেক সাংসদ ইছহাক মিয়ার মেয়ে সাহিদা আক্তার পপি ও নার্গিস আকতার। পাশাপাশি ৩৩, ৩৪ ও ৩৫ নম্বর (ফিরিঙ্গী বাজার, পাথরঘাটা ও বঙিরহাট) সংরক্ষিত ওয়ার্ড থেকে নিয়েছেন বর্তমান কাউন্সিলর লুৎফুন্নেছা দোভাষ বেবী।


উল্লেখ্য, আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরমে মেয়র পদের জন্য ২৫ হাজার টাকা এবং কাউন্সিলর পদের জন্য ১০ হাজার টাকা জমা দিতে হচ্ছে।
দলটির দপ্তর থেকে জানা গেছে, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) নির্বাচনে মেয়র ও কাউন্সিলর পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মাঝে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ৫ দিনব্যাপী দলীয় মনোনয়ন ফরম বিতরণ করা হবে। তবে ১৪ ফেব্রুয়ারি সকলকেই ফরম জমা দিতে হবে।


দেখতে দেখতে একেবারেই ঘনিয়ে এসেছে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন। আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি তফসিল ঘোষণা করবেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার। এরপর দিন নির্বাচন কমিশন মনোনয়ন পত্র বিক্রি শুরু করবে। নির্বাচন কমিশনের থেকে প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে, মার্চের শেষে (২৫ থেকে ৩০ তারিখ) চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যে চট্টগ্রাম নির্বাচন অফিস পুরোদমে প্রস্তুতি শুরু করেছে। অনেক কাজ শেষও করে ফেলেছে। ভোটগ্রহণ কর্মকর্তার প্যানেলের জন্য চিঠিপত্রও রেডি করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।


চসিক নির্বাচনের প্রস্তুতির ব্যাপারে চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মুনীর হোসাইন খান জানান, আমরা প্রস্তুতি শুরু করেছি। প্রাথমিকভাবে ভোট কেন্দ্র পরিদর্শন করে তালিকাও করেছি। তফসিল ঘোষণার পর কমিশন চাইলে আমরা তালিকা পাঠাব। ইতোমধ্যে খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ হয়েছে। মার্চের ১ তারিখ চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হবে

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার