খুলনায় ৬ষ্ঠ দিনে আয়কর মেলায় দাতাদের ঢল

Img

খুলনা কর অঞ্চলের আয়োজনে কর মেলা আর বাকি মাত্র এক দিন। প্রতিদিন কর দাতারা স্বতস্ফূর্তভাবে আয়কর দিতে মেলায় ভীড় করছেন। কর অঞ্চল খুলনার উদ্যোগে আয়োজিত আয়কর মেলার আজ ৬ষ্ঠ দিন হলেও অন্য দিনের ন্যায় আজও  করদাতাদের বেশ ভীড় লক্ষ্য করা গেছে।  ১৮ই নভেম্বর (রবিবার) আয়কর মেলার ৬ষ্ঠ দিনে খুলনা কর অঞ্চলের সারাদিনে আয়কর সেবা গ্রহণকারীর সংখ্যা ছিলো ১১ হাজার ৯৪৬ জন, দাখিলকৃত রিটার্নের সংখ্যা ৭হাজার ৮১৯ এবং আদায়কৃত করের পরিমাণ ছিলো ৩ কোটি ৬৭ লক্ষ ৬৪ হাজার ৫০২ টাকা, নতুন টিআইএন গ্রহণকারীর সংখ্যা ২৩৮টি।

মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখা গেছে, সকাল থেকেই মেলায় স্থাপিত ব্যাংকের বুথগুলোয় সমানে ছিল করদাতাদের দীর্ঘলাইন।একই লাইন দেখা গেছে করদাতা শনাক্তকরণ নম্বর বা ই-টিআইএন, হেলপ ডেস্ক, অনলাইন রিটার্ন দাখিল, ফটোকপিসহ প্রতিটি বুথের সমানে। প্রবীণ করদাতাদের পাশাপাশি নবীনদের ছিল উপচে পড়া ভিড়।

মেলার নির্দিষ্ট ৩ টি ব্যাংকের বুথের সামনেও আয়কর দাতাদের লম্বা সিরিয়াল দেখা যায়। সকল শ্রেনী-পেশার নাগরিকরা তাদের আয়কর রিটার্ন ফ্রম তুলে হেল্প ডেস্কের সাহায্য নিয়ে তাদের প্রদেয় আয়রক প্রদান করছেন। খুলনা মহানগরীর বয়রাস্থ কর ভবন চত্বরে আয়োজিত আয়কর মেলায় অন্য পেশার পাশাপাশি সরকারি চাকরিজীবীদের ব্যাপক সাড়া মিলেছে। আয়কর দিতে আসা শ্রম কর্মসংস্থান মন্ত্রনালয়ের কর্মরত শ্রমিক পরিদর্শক সাঈদ নাহিদ হাসান কর দিতে এসে বলেন, প্রতি বছর কর দিতে আসি। কর দিলে নিজের ভিতর আনন্দ লাগে। এন বি আর এর এই উদ্যোগ কে স্বাগবাদ জানাই, মেলায় রব-রব উৎসবের মধ্য কর দিতে পেরে সত্যিই আমি আনন্দিত।

অন্যদিকে, প্রতিদিনের ন্যায় আজও আয়কর মেলায় কর শিক্ষণ ফোরাম কর্তৃক কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। এই কুইজ প্রতিযোগিতায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০ জন শিক্ষার্থী এবং নর্দার্ন ইউনিভার্সিটি অফ বিজনেস এন্ড টেকনোলজির (এনইউবিটি) ১০ জন শিক্ষার্থী নেয়। প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের মোঃ রিফাত ইমরান এবং দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেন এনইউবিটি-এর লিমি ইডুইন বিশ্বাস। কর অঞ্চলের খুলনার অতিরিক্ত কর কমিশনার জনাব খালিদ শারিফ আরেফিন বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন কর অঞ্চল-খুলনার সহকারী কর কমিশনার মিস দিলারা জাহান। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত কর কমিশনার জনাব খালিদ শারিফ আরেফীন, যুগ্ম কর কমিশনার জনাব মোঃ মঞ্জুর আলম সহ কর অঞ্চল-খুলনার অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও জনাব জি এম আনিসুর রহমান, উপ-পরিচালক ও প্রধান, অর্থ ও হিসাব শাখা, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, জনাব মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, প্রভাষক, এনইউবিটি, সাদিয়া তাসনিম, এনইউবিটি এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান শেষে শিক্ষার্থীরা মেলা প্রাঙ্গন ঘুরে দেখেন এবং ভবিষ্যতে কর প্রদানের অঙ্গীকার করেন।

আয়কর মেলা খুলনা ছাড়াও মাগুরা, নড়াইল, চুয়াডাঙ্গা, ঝিকরগাছা (যশোর), নোয়াপাড়া (যশোর), কালিগঞ্জ (সাতক্ষীরা), ভেড়ামারা (কুষ্টিয়া), কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) এবং মোংলা (বাগেরহাট)-এ কর মেলার আয়োজন করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার