ক্ষুধার্ত শিশুকে বুকের দুধ দিয়ে আর্জেন্টিনার নারী পুলিশের পদোন্নতি

Img

কর্তব্যরত অবস্থায় ক্ষুধার্ত শিশুকে বুকের দুধ খাইয়ে শান্ত করে মানবিকতার নতুন নজির সৃষ্টি করেছেন আর্জেন্টিনার এক নারী পুলিশ অফিসার। বিষয়টি জানতে পেরে ওই পুলিশকর্মীর পদোন্নতির সিদ্ধান্তও নিয়েছে আর্জেন্টিনা পুলিশ।
আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েন্স আয়ার্র্সের একটি শিশু হাসপাতালের সামনে নিয়ম মাফিক টহল দিচ্ছিলেন পুলিশ অফিসার সেলেস্তে জ্যাকেলিন আয়ালা। মারিয়া লুডোভিকা নামের এই হাসপাতালটির নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন তিনিই। টহল দেয়ার সময়ই তার নজরে আসে অপুষ্টিতে ভোগা একটি শিশুকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে। ক্ষুধার জ্বালায় শিশুটি ভীষণ চিৎকার করছে। বাচ্চাটি মুখে বুড়ো আঙুল চুষছে দেখেই সেলেস্তে জ্যাকেলিন বুঝতে পারেন শিশুটি ক্ষুধার্ত। তিনি নিজে কিছুদিন আগেই মা হয়েছেন। তাই সহজেই বুঝে যান তাকে কী করতে হবে। হাসপাতালের কর্মীদের অনুমতি নিয়ে ক্ষুধার্ত বাচ্চাটিকে দুধ খাওয়াতে শুরু করেন তিনি। কিছুক্ষণের মধ্যেই শান্ত হয় শিশুটি। এরপর চিকিৎসার জন্য শিশুটিকে হাসপাতালে নিয়ে যান কর্মীরা।
পুরো বিষয়টি দেখে অবাক হন এক স্থানীয় বাসিন্দা। তিনি ছবি তুলে ঘটনাটি সোশ্যাল মিডিয়ায় তুলে ধরেন। তারপরই সেলেস্তে জ্যাকেলিনের কীর্তি ছড়িয়ে পড়ে সারা পৃথিবীতে। সাধারণ পুলিশ অফিসার থেকে হয়ে যান হিরো। কয়েক ঘণ্টার মধ্যে এই পোস্ট এক লাখ ‘শেয়ার’ হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেলেস্তে জ্যাকেলিনের ফেসবুক অ্যাকাউন্টেও অভিনন্দন, শুভেচ্ছা আর কৃতজ্ঞতার মেসেজের বন্যা বইতে থাকে। খবর পৌঁছায় প্রশাসনের কাছেও।

পূর্ববর্তী সংবাদ

নেতৃত্ব সংকটে অস্ট্রেলিয়া, পার্লামেন্ট মুলতবি

অস্ট্রেলিয়ায় নেতৃত্বের সংকটের মধ্যে চলমান পার্লামেন্ট অধিবেশন মুলতবি ঘোষণা করা হয়েছে।প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুলের ওপর আস্থা হারিয়ে ফেলেছেন তাঁরই দলের পার্লামেন্ট সদস্যরা।
পার্লামেন্টের জ্যেষ্ঠ নেতারা টার্নবুলকে সরিয়ে দিতে চান। তবে তিনি ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছেন।
দলের রক্ষণশীল অংশ টার্নবুলের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করেছে।
পার্লামেন্টের বিরোধীদলীয় নেতা বিল শর্টেন বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়ায় এখন আর কার্যকর সরকার নেই।’
আজ বৃহস্পতিবার পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি সভায় ভোটাভুটি হয়। এতে আগামী ১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পার্লামেন্টমুলতবির রাখার পক্ষে ৭০-৬৮ ভোট পড়ে।
টার্নবুলের দলের নেতা পিটার ডাটন দাবি করেছেন, তিন দিনের মধ্যে দ্বিতীয়বারের মতো নেতৃত্ব নির্বাচনের আয়োজনকরতে হবে।
গত মঙ্গলবার ১৩ ভোটের ব্যবধানে হেরে যাওয়ার পর টার্নবুলের নেতৃত্বকে চ্যালেঞ্জ জানান ডাটন।
স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, টার্নবুল পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিলে ডাটন অর্থমন্ত্রী স্কট মরিসনের প্রতিদ্বন্দ্বিতার মুখে পড়বেন।
সর্বশেষ পরিস্থিতি বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী টার্নবুল কোনো মন্তব্য করেননি। তিনি এখন তিন মন্ত্রীর সমর্থন হারিয়েছেন, যাঁরা ছিলতাঁর ক্ষমতায় টিকে থাকার সুযোগ। এদিকে, নেতৃত্ব সংকটের মধ্যে অস্ট্রেলীয় ডলারের দাম কমতে শুরু করেছে।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার