ক্ষমা চাইলেন ইমরান খান

Img

বিচারককে হুমকির ঘটনায় আদালতের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

নিজের এক সহকর্মীকে আটক ও জেলে পাঠানোয়, গত ২০ আগস্ট জেবা চৌধুরী নামে একজন বিচারক ও দুইজন উচ্চপদস্থ পুলিশ কর্মকর্তাকে হুমকি দেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। 

বিচারক জেবা চৌধুরীকে হুমকি দেওয়ায় ইমরান খানের বিরুদ্ধে আদালতকে অবজ্ঞার মামলা করা হয়। 

সেই মামলায় হাজিরা দিতে বৃহস্পতিবার ইসলামাবাদ হাইকোর্টে উপস্থিত হন ইমরান খান। 

সকলকে অবাক করে এদিন ওই ঘটনার জন্য আদালতের কাছে ক্ষমা চান সাবেক প্রধানমন্ত্রী। 

ইমরান খান আদালতকে জানান, যদি তাকে সুযোগ দেওয়া হয় তাহলে জেবা চৌধুরীর কাছে ব্যক্তিগতভাবে গিয়ে দুঃখ প্রকাশ করবেন তিনি। 

জানা গেছে, ইমরান খান আদালতকে বলেছেন, যদি আমি সীমা লঙ্ঘন করি তাহলে ক্ষমা চাচ্ছি। এমনটি আর হবে না। আমি কখনো আদালতকে অবমাননা করতে চাইনি। এমন কোনো ঘটনা আর হবে না। 

ইমরান খান এমন বক্তব্য দেওয়ার পর ইসলামাবাদ হাইকোর্টের প্রধান বিচারক আথার মিনাল্লা বলেন, আজ আপনার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ গঠন করা হবে না। আদালত আপনার বক্তব্যকে সম্মান করে। আপনার বক্তব্যের গুরুত্ব আপনি বুঝতে পেরেছেন।

এরপর আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত এ মামলার কার্যক্রম মুলতবি ঘোষণা করেন প্রধান বিচারক। 


প্রবাসীরদিগন্ত/মোআআ

- সূত্র: জিও নিউজ
প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার