কি হতে যাচ্ছে মালয়েশিয়া প্রবাসী বাংলাদেশী রায়হান কবিরের সাথে

Img

মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশন বিভাগ জানিয়েছে, মালয়েশিয়া প্রবাসী বাংলাদেশী রায়হান কবিরকে মালয়েশিয়ায় স্থায়ীভাবে নিষিদ্ধ করাসহ কালো তালিকাভুক্ত করা হবে আজ।

এর আগে শুক্রবার (২৪ জুলাই) বিকালে কুয়ালালামপুরের জালান পাহাংয়ের একটি কনডোমোনিয়াম থেকে পুলিশ ও ইমিগ্ৰেশনের স্পেশালব্রাঞ্চের যৌথ  অভিযানে মালয়েশিয়া প্রবাসী বাংলাদেশী রায়হান কবিরকে গ্রেফতার করে।

তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, ৩ জুলাই আল জাজিরা মালয়েশিয়ার লকডাউনে লকড আপ শিরোনামের একটি ডকুমেন্টারি প্রকাশ করেছিলো। সেখানে রায়হান কবির মালয়েশিয়ার সরকারের সমালোচনা করে এবং দাবি করা হয়েছিল যে বিদেশীদের সাথে জড়িত কোভিড-১৯ মামলা পরিচালনার ক্ষেত্রে বৈষম্য ছিল।

প্রতিবেদন টি প্রচারিত হওয়ার পর মালয়েশিয়া সরকার তীব্র নিন্দা জানিয়ে ভিত্তিহীন মিথ্যাচার অভিহিত করে আল জাজিরা টেলিভিশনকে মালয়েশিয়ার জনগণের কাছে ক্ষমা চাওয়ার আহবান জানায় এবং এর প্রেক্ষিতে, রায়হান কবিরের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে দেশটির সরকার।

ঐ গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির দুই সপ্তাহের ব্যবধানে গ্রেফতার হলেন রায়হান কবির।

Img

গ্রেপ্তারের বিষয়ে ইমিগ্রেশন বিভাগের ডিরেক্টর-জেনারেল দাতুক খায়রুল দাজ্জাই দাউদ বলেছেন, "এই বাংলাদেশী নাগরিককে স্থায়ীভাবে মালয়েশিয়ায় প্রবেশ নিষিদ্ধ করা সহ কালো তালিকাভুক্ত করা হবে।"

এর আগে, আল জাজিরায় সাক্ষাৎকার দেওয়ায় বাংলাদেশি রায়হান কবিরের ভিসা বাতিল করে মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশন। একই সময় মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভাগ রায়হান কবিরকে খুঁজে বের করার জন্য জনসাধারণের সহায়তা চেয়ে একটি নোটিশ জারি করে।

এদিকে রায়হান কবিরের গ্রেপ্তারের বিষয়ে উদ্বেগ জানিয়েছে বেশ কয়েকটি মানবাধিকার সংস্থা। 

 

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার