কর্নেল তাহেরের বিচারের সাথে খালেদা জিয়ার বিচার মেলালে চলবে না: ড. কামাল

আমির হোসেন | নিজস্ব প্রতিবেদক : সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৮

বিশিষ্ট আইনজীবী এবং গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, কারাগারে আদালত বসানো সংবিধান সম্মত না।

তিনি বলেন, কর্নেল তাহেরের বিচারের সাথে খালেদা জিয়ার বিচার মেলানো হয়েছে। কিন্তু মনে রাখতে হবে কর্নেল তাহেরের বিচার হয়েছিল সামরিক আদালতে। এর পাশাপাশি তিনি বলেন, কেউ অসুস্থ হলে তাকে হাসপাতালে নেয়া উচিৎ এবং চিকিৎসা দেয়া প্রয়োজন। সরকারের ভুলে যাওয়া উচিৎ নয় আমরা সভ্য সমাজে বাস করি। মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জ নং-৩ (৩য় তলা)-এ গণফোরাম-এর উদ্যোগে সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।

সাম্প্রতিক সময়ে ধরপাকড় নিয়ে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এব্যাপারে তিনি বলেন, যেভাবে ধরপাকড় হচ্ছে এটা নিয়ে উদ্বেগের কারণ আছে। কাউকে গ্রেফতার করতে হলে ওয়ারেন্টসহ ইউনিফর্ম পরে আসতে হবে। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আদালতে হাজির করতে হবে। যেন সে জামিন চাইতে পারে।

তিনি বলেন, বিশেষ কারণে দুই একবার সাদা পোশাকে গ্রেপ্তার করা যেতে পারে। তবে এটা এখন নিয়মিত করা হচ্ছে। কারো অপরাধ থাকলে তাকে আইনের আওতায় আনতে হবে। তাও সংবিধানে স্পষ্ঠ করে উল্লেখ আছে কিভাবে আইনের আওতায় আনতে হবে। এখন যা হচ্ছে সরকার তা করতে পারেনা।

তিনি বলেন, আমরা বেআইনি শাসনে চলে যাচ্ছি। সরকারকে সতর্ক থাকতে হবে। সাবধান হতে হবে। সমস্যার সমাধান করতে হবে। দ্রুত ধরপাকড় বন্ধ করা হোক আশাবাদ ব্যক্ত করে তিনি বলেন, ক্ষমতার প্রয়োগ হবে আইন ও সংবিধানের ভিত্তিতে। কিন্তু এখন যেভাবে সাদা পোশাকে ধরা হচ্ছে সেটা সংবিধান সম্মত নয়, আইনের লঙ্ঘন। সরকার সংবিধান লঙ্ঘন করে দেশ চালাচ্ছে।

তিনি অভিযোগ করেন, সরকার সংবিধান অনুযায়ী দায়িত্ব পালন করছে না। সংবিধানে বলা আছে, কাউকে আটক করা হলে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাকে আদালতে সোর্পদ করতে হবে। সংবিধানের এ নিয়ম মানা হচ্ছে না। আমরা এ সব বিষয়ে আদালতে যাব। উচ্চ আদালতের কাছে আমরা আদেশ চাইব।

তথ্য:

বিভাগ:

প্রকাশ: সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৮

প্রতিবেদক: আমির হোসেন

পড়েছেন: 476 জন

মন্তব্য: 0 টি