করোনায় কুমিল্লার সাবেক এমপি এটিএম আলমগীরের মৃত্যু

বিষয়: করোনাভাইরাস
Img

না ফেরার দেশে চলে গেলেন লাকসামের সাবেক এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা এটিএম আলমগীর হোসেন। 

সোমবার (৩ আগস্ট) রাত সোয়া আটটায় ঢাকার গ্রীণ লাইফ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। 

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৭১ বছর। তিনি স্ত্রী, ১ ছেলে, ২ মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

জানা যায়, মাসখানেক আগে ব্রেইন স্ট্রোক করে ঢাকার গ্রীণ লাইফ হাসপাতালে ভর্তি হন এটিএম আলমগীর। এর মধ্যে তার করোনা পজিটিভ আসে। সার্বিক সুস্থ্যতার জন্য তিনি ওই হাসপাতালেই ভর্তি ছিলেন। সোমবার রাত সোয়া আটটায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মঙ্গলবার জানাযা শেষে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তার দাফনকার্য সম্পন্ন হবে।

উল্লেখ্য, এটিএম আলমগীর ১৯৫০ সালে কুমিল্লা জেলার মনোহরগঞ্জ উপজেলার ঝলম গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি লাকসাম সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় হতে ১৯৬৬ সালে মেট্রিক পাশ করে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ হতে ১৯৬৮ সালে অর্থনীতিতে অনার্স এবং পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হতে অর্থনীতিতে মাস্টার্স ও এলএলবি পাশ করেন। এর পর নেদারল্যান্ড হতে পিজিডি পোষ্ট গ্রেজুয়েশন লাভ করেন। 

তিনি ১৯৬৬-১৯৬৮ সালে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহসভাপতি ছিলেন। পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এসএম হল শাখা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক হন। ১৯৯৬ সালে সুপ্রিম কোর্টে আইন পেশায় প্রবেশ করেন। বাংলাদেশ শিল্প ব্যাংক ও বাংলাদেশ কমার্স ব্যাংকের তিনি সাবেক চেয়ারম্যান।

তিনি ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে বিএলএফ ডিপুটি কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পঞ্চম ও ষষ্ঠ (১৯৯১ ও ১৯৯৬) জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি দলীয় এমপি ছিলেন তিনি। ২৩ এপ্রিল ২০১৮ সালে জাতীয় পার্টিতে যোগদান করে জাতীয় পাটির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য নিযুক্ত হন। তিনি সপ্তম, অষ্টম ও একাদশ (১৯৯৬, ২০০১ ও ২০১৮) জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিয়ে পরাজিত হন।
 

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার