ওমানে একই পরিবারের দু’জনসহ তিন বাংলাদেশি নিহত

Img
প্রতীকী ছবি

ওমানের মাছিরাহ নামক স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের দু’জনসহ তিন বাংলাদেশি নিহত হয়েছে। জানা গেছে, কর্মস্থল থেকে ফেরার পথে দেশটির মাছিরাহ নামক দ্বীপে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত তিনজনের বাড়ি নোয়াখালীর হাতিয়ায়।

নিহতরা হলেন- আকবার হোসেন (৩২), জাহাঙ্গীর (২৮), শাহ আলম (৪৮)। এদের মধ্যে দুজন একই পরিবারের। নিহত আকবারের বাড়ি বি-বাড়িয়ার নবীনগরে। আহত চারজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক, ওমানের সুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তারা।

অন্যদিকে একই পরিবারের দুজন নিহত হওয়ায় স্বজনদের আহাজারিতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। নিহতদের পরিবারের পক্ষ থেকে মরদেহ দেশে পাঠাতে দূতাবাসের প্রতি অনুরোধ জানানো হয়েছে।
পূর্ববর্তী সংবাদ

ভ্যাকসিন হিরো পুরস্কার পাওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা

গ্লোবাল এলায়েন্স ফর ভ্যাক্সিনেশন এন্ড ইমুনাইজেশন (জিএভিআই) কর্তৃক ভ্যাকসিন হিরো পুরস্কারে ভূষিত হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বাংলাদেশ স্বাস্থ্য বিভাগের স্বাস্থ্য সহকারীদের সংগঠন বাংলাদেশ হেলথ এসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশন।

৪ অক্টোবর (শুক্রবার) বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ শুভেচ্ছা জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে সংগঠনটির সভাপতি শেখ রবিউল আলম খোকন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শী সম্পন্ন পদক্ষেপ ও স্বাস্থ্য সহকারীদের টিকাদান কর্মসূচিতে একনিষ্ঠতা বাংলাদেশের স্বাস্থ্যখাতকে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন।

তিনি বলেন, গুটিবসন্ত দূরীকরণ, ম্যালেরিয়া দূরীকরণ, ডিপথেরিয়া, পার্টোসিস ও ধনুষ্টংকার নিয়ন্ত্রণ, শিশুদের যক্ষা নিয়ন্ত্রণ, হাম-রুবেলা নিয়ন্ত্রণ, হেপাটাইসিস বি নিয়ন্ত্রণসহ পোলিও মুক্ত বাংলাদেশ গঠনের প্রধান কারিগর স্বাস্থ্য সহকারীগন। আমরা স্বাস্থ্য সহকারীরা গর্ভবতী মা ও শিশু নিবন্ধন এবং ১৯ থেকে ৪৯ বয়সী সকল মহিলার নিবন্ধন ও তাদের টিকার আওতায় নিয়ে আসা আমাদের প্রধান কাজ। আমাদের অনবদ্য কাজের ফলেই মাতৃমৃত্যু ও শিশুমৃত্যুর হার কমেছে।

সমাবেশে বক্তারা দাবি করেন, আমরা উঠান বৈঠকের মাধ্যমে প্রান্তিক মানুষকে স্বাস্থ্য শিক্ষা প্রদান করি এবং প্রতিমাসে চার দিন বিদ্যালয়ে স্বাস্থ্য শিক্ষা প্রদান করি। সংক্রমক ও অসংক্রমক রোগে আক্রান্ত রোগীকে হাসপাতালে প্রেরণ করি। স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্মতৎপরতার ফলে টিকাদান কর্মসূচি আজ দক্ষিাণ এশিয়ায় প্রথম স্থান অধিকার করেছে। প্রধানমন্ত্রী জিএভিআই কর্তৃক ভ্যাকসিন হিরো উপাধিতে ভূষিত হওয়া স্বাস্থ্য সহকারীদের নিরলস কর্মের ফসল বলে তারা দাবি করে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ হেলথ এসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশনের সেক্রেটারি জিয়াউল হোসেন বাবুল, সাংগঠনিক সম্পাদক নিজাম উদ্দিনসহ আরও অনেকে। সাংবাদিক সম্মেলন শেষে উজ্জীবিত স্বাস্থ্য সহকারীরা প্রেসক্লাব চত্বরে মনি পতাকা গায়ে জড়িয়ে আনন্দ র‌্যালি বের করেন।

র‌্যালি শেষে সাধারণ স্বাস্থ্য সহকারীরা , ১৯৯৮ সালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর "টেকনিক্যাল পদ " মর্যাদার ঘোষণা বাস্তবায়নসহ ১১ তম বেতন গ্রেডের দাবি জানায়।

 

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার