একটি পূর্ণাঙ্গ এজাহারের (FIR) বৈশিষ্ট্য

Img

(১) অপরাধীর নাম ও ঠিকানা (জানা থাকলে) সুস্পষ্ট হওয়া।
(২) অপরাধের বর্ণনা যৌক্তিকভাবে লিপিবদ্ধ করা।
(৩) অপরাধ সংঘ্টনের তারিখ ও সময় উল্লেখ করা।
(৪) অপরাধের ঘটনাস্থল (পিও) উল্লেখ করা।
(৫) অপরাধ সংঘটনের কোন পূর্ব সূত্র বা কারণ থেকে থাকলে তার বর্ণনা তুলে ধরা।
(৬) সন্ধিগ্ধ ব্যক্তিদের সম্পর্কে ধারণা দেয়া।
(৭) অপরাধ পরবর্তী অবস্থা যেমন সাক্ষীদের আগমন, আহত ব্যক্তির চিকিত্‍সা ইত্যাদি সম্পর্কে বর্ণনা।
(৮) অপরাধীদের কেহ বাঁধা দিয়ে থাকলে তার ধারাবাহিক বর্ণনা করা।
(৯) কোন বিষয় তাত্‍ক্ষনিক ভাবে লেখা সম্ভব না হলে পরবর্তীতে সে বিষয়টি সংযোজন করা হবে এমন একটি কৈফিয়ত এজাহারে রাখা৷
(১০) এজাহারে কোন ঘষা-মাজা, কাটা-কাটি করা উচিত না৷

এড.মোঃ সোহরাব হোসেন ভুইয়া
আইনজীবী, জজকোর্ট ঢাকা/কুমিল্লা, বাংলাদেশ।

পূর্ববর্তী সংবাদ

আরব আমিরাতে বাংলাদেশ যুবলীগ উম্ম আল কোয়াইন প্রাদেশিক শাখার উদ্যোগে শোক দিবস পালিত

অারব অামিরাত থেকেঃ সংযুক্ত অারব অামিরাতের উম্ম আল কোয়াইন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রাদেশিক শাখার উদ্যোগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল স্থানীয় একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনের সভাপতি মোহাম্মদ সেলিম বেপারীর সভাপতিত্বে ও সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুক আহাম্মেদ মুরাদের পরিচালনায়।এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ইউএই আওয়ামী যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর অালম। সভায় প্রাধান বক্তার বক্তব্য রাখেন ইউএই আওয়ামী যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার সুবোধ চৌধুরী শিবু, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ইউএই আওয়ামী যুবলীগের সাগঠনিক সম্পাদক এস এম শফিকুল ইসলাম শফিক, মোহাম্মদ মিজান,মোহাম্মদ নজরুল,মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন, আলী আকবর, মোহাম্মদ ফরিদ আলম, মইনুল ইসলাম, ইদ্রিস তালুকদার ও খোরশেদ আলম।

এতে মোনাজাত পরিচালনা করেন উম্ম আল কোয়াইন আওয়ামী যুবলীগের সহ সভাপতি মাওলানা ওমর ফারুক।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার