এই প্রথম স্ক্রিন শেয়ার করলেন রাজ-শুভশ্রী

Img

তাক লাগানোর মতোই খবর! শরীর জুড়ে আসন্ন মাতৃত্বের ছাপ স্পষ্ট। এই অবস্থাতেই লাইট-সাউন্ড-ক্যামেরা-অ্যাকশন শব্দগুলোর মুখোমুখি শুভশ্রী! উঁহু, একা নন। সঙ্গে কর্তা রাজ চক্রবর্তীও আছেন। ওয়ান শোল্ডার ড্রেসে নায়িকার গ্ল্যামার রোখা দায়। সঙ্গে রাজ মানানসই সাদা কুর্তা, নীল জিন্স, সাদা চশমায়।

সোশ্যাল তোলপাড়, রঙের সংস্থার বিজ্ঞাপনে ‘রাজশ্রী’র স্ক্রিন শেয়ারের কথা চাউর হতেই। ইদানিং, বলিউডে অন্তঃসত্ত্বা নায়িকারা শুটিং করলেও বাংলায় সম্ভবত এই প্রথম। এবং এই প্রথম রাজ-শুভশ্রীর অফ স্ক্রিন রোমান্স অন স্ক্রিন হল। ফলে, চক্রবর্তী দম্পতিকে ঘিরে উত্তেজনা তুঙ্গে। খবর, নিজেদের বাড়িতেই শুট করেছেন তাঁরা।

স্বামীর সঙ্গে অভিনয় করে কেমন লাগল? শুভশ্রীর ছোট্ট উত্তর, ‘‘প্রযোজনা সংস্থা এসভিএফের যৌথ উদ্যোগে তৈরি এই বিজ্ঞাপনী ছবি আমার জীবনের গল্পই বলবে।’’ অনুভূতি ভাগ করেছেন রাজ-ও, ‘‘এই প্রথম শুভশ্রীর বিপরীতে আমি! অফার পেতেই তাই এক কথায় রাজি। অনেক অন্ধকার স্তর পেরিয়ে এই ছোট্ট সফর আবার যেন আলোয় ফেরাল।’’

পূর্ববর্তী সংবাদ

চুমু খেয়ে সুইডিশ নারীর কোরআন অবমাননার প্রতিবাদ

এক সুইডিশ নারীর পবিত্র কোরআন চুমু খাওয়ার দৃশ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

ফেসবুক ও অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা যায় সুইডেনের মালমো শহরে সংঘটিত কোরআন পোড়ানোর প্রতিবাদে ওই নারী কোরআন চুমু খান। আর বলেন, ‘সুইডিশ নারী মালমো শহরের মুসলিমদের সঙ্গে একত্বতা ঘোষণা করেছে।’

ফেসবুক পেজে বলা হয়, ওই নারী বলছে, ‘আমি জানি না বইটি কি সম্পর্কে। কিন্তু মানবতা ও অনুকম্পার জন্য আমি তোমাদের সঙ্গে একাত্বতা ঘোষণা করছি। বইটি যেহেতু তোমাদের কাছে গুরুত্ব, তাই আমার কাছেও তা গুরুত্বপূর্ণ। বইটি চুমু দিয়ে আমি গর্বিত।’

সুইডিশ নারী আরো বলেন, ‘ডেনিশ ব্যক্তি সুইডেনে যা করেছে তাতে আমরা সন্তুষ্ট নই।’

সুইডেনের পত্রিকা নারীটির ছবি প্রকাশ করলে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সবার দৃষ্টি কাড়ে।

গত শুক্রবার (২৮ আগস্ট) সুইডেনের মালমো শহরে কট্টরপন্থী ডেনিশ দল হার্ড লাইনের তিন সদস্য কোরআন পুড়িয়ে অবমাননা করা হয়।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার