তৃষ্ণা মেটাতে বিভিন্ন ধরনের শরবত খেয়ে থাকি আমরা। শরবত ও খেজুর দিয়ে সাধারণত ইফতার করা হয়। 
কলা, আপেল, বেদেনা, স্ট্রবেরি, আনারসের জুস খান অনেকে। তবে এই গরমে ইফতারে খেতে পারেন বেলের শরবত। বেলের শরবতের গুণাগুণ আমাদের অনেকের অজানা। বিশেষ করে পেটের সমস্যায় ও খাবার হজমে বেলের শরবত খুব উপকারি।

পুষ্টিবিদেরাও বেলের শরবতের প্রশংসা করেন। আপনি চাইলে ঘরেই তৈরি করতে পারেন বেলের শরবত। কারণ ঘরে তৈরি বেলের শরবত বেশি স্বাস্থ্যসম্মত।

ইফতারে কেন খাবেন বেলের শরবত?
হজমে সমস্যা আছে তাদের জন্য বেলের শরবত বেশ উপকারী। কাঁচা বেল ডায়রিয়ার রোগীদের জন্য বিশেষ ভাবে কাজ করে। বেল ফালি ফালি করে কেটে রোদে শুকিয়ে গুঁড়া করে উষ্ণ গরম পানির সঙ্গে মিশিয়ে খেতে পারেন।

এছাড়া বেল ফালি ফালি করে কেটে রোদে শুকিয়ে সংরক্ষণ করতে পারেন। রাতে এক গ্লাস পানিতে তিনটি ফালি ভিজিয়ে রেখে সকালে খালি পেটে খেতে পারে। ডায়রিয়া, আমাশয় জন্ডিস, যক্ষ্মা, উচ্চ রক্তচাপের জন্যও বেলের জুড়ি নেই।

কীভাবে বেলের শরবত তৈরি করবেন?
পাকা বেল পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। চামচ বা ছুরি ব্যবহার করে বেলের শক্ত খোসা ছাড়িয়ে এর শাঁস আলাদা করুন। এতে পরিমাণমতো পানি দিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। এরপর পানিতে ওই শাঁস গুলিয়ে নিন, যতক্ষণ না পরিপূর্ণ পানির সঙ্গে মেশে ততক্ষণ নাড়ুন। বেলের বীজগুলো আলাদা করে সরিয়ে ফেলুন। ছেঁকে নিয়ে বেলের শরবত আলাদা করে ফেলুন।

এতে প্রয়োজনে কিছুটা চিনি ও লেবুর রস দিয়ে গুলিয়ে নিন। প্রয়োজন হলে বরফের টুকরো যুক্ত করে ঠান্ডা করে নিন। এরপর পরিবেশন করুন।