ইংল্যান্ডে ৬ জনের বেশি মানুষ একত্রিত হতে মানা

Img

আগামী সোমবার থেকে ইংল্যান্ডে নতুন এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। অবশ্য কিছু ক্ষেত্রে এর ব্যতিক্রমও থাকছে।

সামাজিকভাবে ঘরের বাইরে বা ভেতরে কোথাও বড় পরিসরে সমবেত হওয়া যাবে না। ৬ জনের বেশি মানুষ কোথাও একত্রিত হতে পারবে না।

তবে এই নিষেধাজ্ঞার বাইরে রয়েছে স্কুল, কর্মক্ষেত্র, কোভিড-সুরক্ষিত বিয়ের অনুষ্ঠান, শেষকৃত্য এবং সংগঠিত স্পোর্টস টিম। নতুন এই নিষেধাজ্ঞায় পুলিশকে সহায়তা না করলে ১শ ডলার জরিমানা গুনতে হবে।

আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে লোকজনকে নতুন নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। তবে কোন কোন ক্ষেত্র নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে তা পরবর্তীতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হবে।

বুধবার ডাউনিং স্ট্রিট থেকে এক সংবাদ সম্মেলন করার কথা প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের। এ বিষয়ে তিনি হয়তো বিস্তারিত তুলে ধরবেন।

এর আগে এক বিবৃতিতে প্রধানমন্ত্রী জনসন বলেছিলেন, ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে সবাইকে কাজ করতে হবে। সে কারণেই সামাজিক যোগাযোগে কিছু বিধি-নিষেধ আরোপ করা হচ্ছে।

তিনি সবাইকে এসব বিধি-নিষেধ মেনে চলতে এবং পুলিশকে তাদের দায়িত্ব সঠিকভাবে পালনে সহায়তা করার আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, লোকজন এখন মূল নিয়মগুলো সম্পর্কে জানে, তারা বার বার হাত পরিষ্কার করছে, মুখ ঢেকে রাখছে, একজন থেকে অন্যজন দূরত্ব মেনে চলছে এবং করোনার কোনো লক্ষণ দেখা দিলে পরীক্ষা করাচ্ছে।

১০ জন নয়, এমন স্লোগানের আওতায় সাতজন বা তার বেশি লোকজন কোথাও একত্র হতে পারবে না। এই নিয়ম ভঙ্গ করলে পুলিশ যে কাউকে জরিমানা করতে পারবে। যুক্তরাজ্যে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৫২ হাজার ৫৬০। এর মধ্যে মারা গেছে ৪১ হাজার ৫৮৬ জন।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার