আরব আমিরাতে নতুন ভিসা পদ্ধতি চালু

আমির হোসেন | নিজস্ব প্রতিবেদক : অক্টোবর ২২, ২০১৮

অবশেষ সংযুক্ত আরব আমিরাতের চালু হলো বহুল প্রতীক্ষিত নতুন ভিসা পদ্ধতি। দেশটিতে বসবাসরত প্রবাসীরা ২১ অক্টোবর থেকে নতুন এ ভিসা পদ্ধতির সুবিধা পাবেন বলে জানিয়েছে ফেডারেল অথরিটি ফর আইডেন্টিটি এণ্ড সিটিজেনশিপ (এফএআইসি)।

নুতন এ ভিসা পদ্ধতি প্রবাসীদের পরিবার, ভিজিটর ভিসা প্রাপ্ত প্রবাসী এবং শিক্ষর্থীদের জন্য বিশেষ কিছু সুবিধা প্রদান করবে আমিরাত সরকার। নতুন এই ভিসা পদ্ধতির আওতায় বিধবা এবং তালাকপ্রাপ্ত নারী ও তাঁদের সন্তানরা এক বছরের ভিসার মেয়াদ বাড়ানোর সুবিধা পাবেন।

এছাড়া যাদের ভিজিট ভিসা আছে তাঁরা দেশ ছাড়ার আগে সর্বোচ্চ দু’বার ৩০ দিনের জন্য ভিসার মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন করতে পারবেন। নতুন এ ভিসা পদ্ধতিতে তালাকপ্রাপ্ত নারীদের তালাক কার্যকর হওয়ার দিন থেকে এবং বিধবা নারীদেরকে তাঁর স্বামীর মৃত্যুর দিন থেকে এক বছরের জন্য ভিসার মেয়াদ বাড়ানোর সুযোগ দেয়া হবে।

এফএআইসি’র পররাষ্ট্র ও বন্দর বিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার সাঈদ রশিদী বলেন, বিধবা ও তালাকপ্রাপ্ত নারীদের এ ভিসার জন্য আবেদন করতে কোনো টাকার প্রয়োজন হবে না। নারীদের সামাজিক ও অর্থনৈতিক সমস্যা মোকাবেলায় নতুন এই পদ্ধতি চালু করা হয়েছে। এর আগে আমিরাতে বসবাসকারী কোনো নারীকে তাঁর স্বামীর মৃত্যু হলে কিংবা তালাকপ্রাপ্ত হলে সন্তানসহ দেশে ফিরে আসতে হতো।

কিন্তু নতুন এই ভিসা পদ্ধতির কারণে এখন তাঁদেরকে আর আমিরাত ছেড়ে আসতে হবে না। আমিরাতে যারা ভিজিট ভিসাতে দেশটিতে এসেছে তাঁরা তাঁদের ভিসার মেয়াদ বাড়াতে চাইলে ৬০০ দিরহাম খরচ করতে হবে। এছাড়াও আমিরাতে পড়তে যাওয়া শিক্ষর্থীরা নতুন এ ভিসা পদ্ধতির কারণে বেশ কিছু সুযোগ-সুবিধা পাবেন।

বাংলাদেশের জন্য আমিরাতের শ্রমবাজার বন্ধ থাকার পরও দেশটিতে চালু হওয়া নতুন ভিসা পদ্ধতিকে স্বাগত জানিয়েছে প্রবাসী বাংলাদেশিরা। তবে তাঁরা আশাবাদী অতিদ্রুত আমিরাত সরকার বাংলাদেশের শ্রমবাজার আবারো খুলে দেওয়ার সিধান্ত নিবেন। -ভয়েস বাংলা

তথ্য:

বিভাগ:

প্রকাশ: অক্টোবর ২২, ২০১৮

প্রতিবেদক: আমির হোসেন

পড়েছেন: 598 জন

মন্তব্য: 0 টি