আরব আমিরাতের নতুন রাষ্ট্রপতি শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান

Img

সংযুক্ত আরব আমিরাতের নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান। তিনি সংযুক্ত আরব আমিরাতের তৃতীয় রাষ্ট্রপতি। খবর গালফ নিউজের।

শেখ মোহাম্মদ প্রয়াত রাষ্ট্রপতি শেখ খলিফার ভাই। সংযুক্ত আরব আমিরাতের সুপ্রিম কাউন্সিল শনিবার আবুধাবির শাসক শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ানকে দেশটির রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত করে।

দেশটির নতুন রাষ্ট্রপতি ঘোষণার পর উপ-রাষ্ট্রপতি ও আমিরাতের প্রধানমন্ত্রী এবং দুবাইয়ের শাসক শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুম, দুবাইয়ের ক্রাউন প্রিন্স ও দুবাই নির্বাহী পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হামদান বিন মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুম তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান ১৯৬১ সালে আল আইনে জন্মগ্রহণ করেন। পিতা আমিরাতের প্রথম রাষ্ট্রপতি শেখ জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ান ও মাতা শেখা ফাতেমা বিনতে মুবারক।

পূর্ববর্তী সংবাদ

অবৈধ সম্পর্ক ঢাকতে নবজাতক হত্যা, জামাই-শ্বশুর আটক

বাগেরহাটের রামপালে অবৈধ সম্পর্ককে ধামা চাপা দিতে সদ্যজাত নবজাতক শিশুকে নদীতে ফেলে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে জামাই-শ্বশুরের বিরুদ্ধে।

শুক্রবার (১৩ মে) দুপুরে রামপাল উপজেলার মল্লিকেরবেড় গ্রামে এই নারকীয় হত্যার ঘটনা ঘটেছে। এঘটনায় ওই রাতেই স্থানীয় আম্বিয়া বেগম নামের নারীর করা মামলায় অবৈধ সম্পর্ক স্থাপনকারী আলামিন শেখ ও তার শ্বশুর শাহাজাহান হাওলাদারকে গ্রেফতার করেছেন পুলিশ।

শনিবার (১৪ মে) দুপুরে গ্রেফতারকৃতদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

গ্রেফতার আল আমিন শেখ (২৬)মল্লিকেরবেড় গ্রামের জামেল হাওলাদারের ছেলে এবং শাহাজাহান হাওলাদারের মেয়ের জামাতা।

মামলা সূত্রে জানা যায়, শ্বশুরবাড়িতে বসবাসের সুযোগে আল আমিনের সাথে তার চাচাতো শালি ১৭ বছর বয়সী কিশোরীর অবৈধ সম্পর্ক গড়ে ওঠে ৷ শারীরীক সম্পর্কের একপর্যায়ে ওই কিশোরী গর্ভবতী হয়ে পড়ে ৷ শুক্রবার (১৩) বেলা ১১টার দিকে কিশোরীর প্রসব বেদনা ওঠে। তখন গোপনে দুলাভাই আলামিন, আল আমিনের শ্বশুর শাহাজাহান ও কিশোরীর পরিবারের লোকজন তাকে নিয়ে গ্রাম্য ডাক্তারের কাছে যায়। পথিমধ্যে কবির নামের এক ব্যক্তির বাড়ীর সামনে ভ্যানের উপর একটি পুত্র সন্তান জন্ম দেয় ওই কিশোরী। পরবর্তীতে আলামীন ও তার শ্বশুর মিলে নবজাতক শিশুটিকে খালের পানিতে চুবিয়ে হত্যা করে ৷ এরপর তার মরদেহটি খালের পাশে পুতে ফেলার সময় স্থানীয়রা বিষয়টি দেখতে পায়।

রামপাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ সামসুদ্দিন বলেন, স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে আলামিন ও তার শ্বশুরকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আল আমিন হত্যা ও অবৈধ সম্পর্কে কথা স্বীকার করেছে। আল আমিন ও তার শ্বশুরকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

ওসি আরও বলেন, কিশোরী এখনও অসুস্থ রয়েছেন। সে তার বাড়িতে আছেন। বাড়িতে বসেই প্রয়োজনীয় চিকিৎসা গ্রহন করছেন।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার