আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ঢাকার দোহারে শিশুদের চিত্রাঙ্কন

ও সুন্দর হাতের লেখা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

Img

মহান একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ঢাকার দোহারের জনপ্রিয় সামাজিক সংগঠন 'সে টুগেদার' এর উদ্যোগে চিত্রাঙ্কন ও সুন্দর হাতের লেখা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় চর হোসেন পুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের হল রুমে এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে মাহমুদপুর ইউনিয়ন ও কুশুমহাটী ইউনিয়নের  বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়।

চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছে সীমা আক্তার (৩য় শ্রেনী)  চর হোসেন পুর সঃ প্রাঃ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী,সুন্দর হাতের লেখায় ১ম হয়েছে ক্যাট -১(৫ম -৭ম শ্রেণী) একই বিদ্যালয়ের বিথী বিশ্বাস (৭ম শ্রেনী) ও ক্যাট- ২(১ম-৪র্থ শ্রেণী) কার্তিকপুর সঃ প্রাঃ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মালিহা আক্তার (৩য় শ্রেণী)।

চিত্রাঙ্কন ও সুন্দর হাতের লেখা প্রতিযোগিতায় বিচারক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চর হোসেন পুর সঃ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকা মাহমুদা আক্তার ,সহকারী শিক্ষক এখলাছ উদ্দিন,মনোরঞ্জন চক্রবর্তী, সার্জেন্ট শাহজাহান মোল্লা,মুক্তিযোদ্ধা আইয়ুব আলী, সে টুগেদারের সভাপতি মোঃ শাহীন,কার্যকারী সদস্য লিয়াকত মোল্লা ও জামাল মোল্লা। পরে বিজয়ীদের মাঝে স্কুল ব্যাগ সহ সকল অংশগ্রহনকারীদের মাঝে বিভিন্ন প্রকার পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন 'সে টুগেদার' এর প্রধান উপদেষ্টা ইঞ্জিনিয়ার এম এ খান সোহেল সহ দোহারের আলোকিত ব্যক্তিবর্গ।
 

পূর্ববর্তী সংবাদ

জামালপুরে এক ভুয়া এমবিবিএস ডাক্তারের ১৫ দিনের জেল

জামালপুরের মাদারগঞ্জ উপজেলায় এ কে এম সিরাজুল ইসলাম নামের একজন ভুয়া এমবিবিএস ডাক্তারকে আটক করে ১৫ দিনের বিনাশ্রম করাদ- ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। তার বাড়ি সিরাজগঞ্জ জেলার কামারখন্দ উপজেলায়।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে এ অভিযান চালানো হয়।

জানা গেছে, সিরাজগঞ্জ জেলার কামারখন্দ উপজেলার এ কে এম সিরাজুল ইসলাম নিজেকে একজন এমবিবিএস ডাক্তার পরিচয়ে মাদারগঞ্জ পৌরসভার বালিজুড়ি বাজারে নিউ সেবা ডায়াগনস্টিক সেন্টারের চেম্বারে বসে দীর্ঘদিন ধরে রোগী দেখে আসছিলেন। স্থানীয় অন্যান্য ক্লিনিকেও তিনি রোগী দেখতেন।

ভুক্তভুগীদের অভিযোগের ভিত্তিতে মাদারগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী হাকিম মো. আমিনুল ইসলাম বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই ডায়াগনস্টিক সেন্টারে আকস্মিক ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালান। এ সময় চেম্বারে রোগী দেখা অবস্থায় এ কে এম সিরাজুল ইসলামকে হাতেনাতে আটক করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের জিজ্ঞাসাবাদে এমবিবিএস পাসের বৈধ কোনো সনদপত্র দেখাতে পারেননি তিনি। পরে নির্বাহী হাকিম মো. আমিনুল ইসলাম ২০১০ সালের বাংলাদেশ মেডিক্যাল ও ডেন্টাল কাউন্সিল আইনের ২৯ এর ১ ও ২ ধারায় ভুয়া ডাক্তার এ কে এম সিরাজুল ইসলামকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম করাদন্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। ভ্রাম্যমাণ আদালতের রায় ঘোষণার পর তাকে জামালপুর জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মাদারগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. মাজহারুল ইসলাম ও মাদারগঞ্জ থানা পুলিশ এ অভিযানে অংশ নেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী হাকিম মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘আইন অনুযায়ী বিডিএস ও এমবিবিএস সনদ ছাড়া কেউ নিজেকে এমবিবিএস ডাক্তার পরিচয় দিতে পারবেন না। অভিযানের সময় এ কে এম সিরাজুল ইসলামের কাছ থেকে এমবিবিএস ডাক্তার পরিচয়ের প্যাড জব্দ করা হয়েছে। ’

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার