আবহাওয়া অধিদপ্তর এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, আজ শুক্রবার মধ্যরাতের দিকে ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’ বাংলাদেশে প্রবেশ করবে। 

এতে বলা হয়েছে, শুক্রবার সকাল ৬টা নাগাদ ফণী মংলা বন্দর থেকে ৬০৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, পায়রা বন্দর থেকে ৬৩৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত থেকে ৭৭০ কিলোমিটার পশ্চিম-দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ৭৯০ কিলোমিটার পশ্চিম-দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছে।

এটি আরো উত্তর ও উত্তর-পূর্ব দিকে সরে শুক্রবার বিকেল নাগাদ ভারতের ওড়িশা অতিক্রম করে। পরে এটি আরো উত্তর ও উত্তর-পূর্ব দিকে সরে পশ্চিমবঙ্গ উপকূলীয় এলাকায় আঘাত হানবে। ‘ফণী’ শুক্রবার মধ্যরাতের দিকে বাংলাদেশের খুলনা ও তৎসংলগ্ন দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূল এলাকা অতিক্রম করবে। এর প্রভাবে বিকেলের মধ্যে প্রবল ঝড় বয়ে যেতে পারে।

বাতাসের গতিবেগ ঘন্টায় ৭৪ কিলোমিটার পর্যন্ত থাকতে পারে। ঘূর্ণিঝড়ের কেন্দ্রে বাতাসের সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘন্টায় ১৮০ থেকে ২০০ কিলোমিটার পর্যন্ত থাকতে পারে। এ সময় ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের কাছে সাগরে অত্যন্ত উুঁচ ঢেউ থাকতে পারে।