আজকের শীর্ষ ৫ সংবাদ - ১৮ মে ২০২০

Img

আজ সোমবার, ১৮ মে ২০২০। দেশজুড়ে এবং বিশ্বব্যাপী ঘটে যাওয়া গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা নিয়ে প্রবাসীর দিগন্তের নিয়মিত আয়োজনে জানিয়ে দেওয়া হল আজকের শীর্ষ ৫ সংবাদ।

১. করোনায় দেশে ২৪ ঘণ্টায় আরও ২১ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ১৬০২ জন

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরো এক হাজার ৬০২ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে ২৩ হাজার ৮৭০ জনে দাঁড়িয়েছে। একই সময়ে মারা গেছেন আরো ২১ জন। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৩৪৯ জন। আক্রান্ত ও মৃত্যুর একদিনের পরিসংখ্যানে সর্বোচ্চ।

সোমবার (১৮ মে) দুপুর আড়াইটার দিকে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে অনলাইনে দৈনন্দিন স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ তথ্য জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা। বিস্তারিত...

২. মংলা-পায়রায় ৭, চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত

ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের প্রভাবে মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত নামিয়ে তার পরিবর্তে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

উপকূলীয় জেলা সাতক্ষীরা, খুলনা, বাগেরহাট, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, বরগুনা, পটুয়াখালী, ভোলা, বরিশাল, লক্ষ্মীপুর, চাঁদপুর, নোয়াখালী, ফেনী, চট্টগ্রাম ও তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ এবং চরসমূহ ৭ নম্বর বিপদ সংকেতের আওতায় থাকবে। বিস্তারিত...

৩. নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ঈদ যাত্রা অব্যাহত

ঈদের সময় এক জেলা থেকে অন্য জেলায় যাতায়াতের ওপর সরকারি বিধিনিষেধ থাকলেও অনেকেই তা উপেক্ষা করছেন বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। বাস-ট্রেন না চললেও, বিভিন্নভাবে যানবাহন জোগাড় করে অনেক মানুষই ঢাকা থেকে অন্য জেলায় যাচ্ছেন।

পুলিশ বলছে, তারা এরই মধ্যে অনেক গাড়ি আটক করছে এবং অনেক মানুষকে ফেরত পাঠাচ্ছে, কিন্তু তবুও প্রবণতা পুরোপুরি বন্ধ করা যাচ্ছেনা। বিস্তারিত...

৪. ঘূর্ণিঝড় আম্পান মোকাবেলায় চট্টগ্রামে ব্যাপক প্রস্তুতি

ঘূর্ণিঝড় আম্পান ধেয়ে আসছে। এরইমধ্যে পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুতি শুরু করছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন।

উপকূলীয় আশ্রয় কেন্দ্রগুলো প্রস্তুত রাখা হয়েছে। মেডিক্যাল টিম গঠন করা হয়েছে। সৈকত সংলগ্ন এলাকা থেকে মানুষ যাতে আগেই নিরাপদ অবস্থানে সরে যায়, সেজন্য মাইকিং করা হচ্ছে। ঘূর্ণিঝড় আম্পান মোকাবিলায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির জরুরি বৈঠক করেছে জেলা প্রশাসন। বিস্তারিত...

৫. মালয়েশিয়ায় জেলের মেয়াদ শেষে দেশে ফেরার অপেক্ষায় ১২শত বাংলাদেশি

করোনা ভাইরাসের কারণে আকাশ পথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন থাকায় জেলের সাজার মেয়াদ শেষে আটকা পড়েছে প্রায় ১২ শত বাংলাদেশি। সাজার মেয়াদ শেষ হওয়াদের জন্য ইতিমধ্যেই সেদেশের সরকারের সাথে আলোচনা করে দেশে ফেরানোর উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ হাইকমিশনের পক্ষ থেকে।

সব কিছু ঠিক থাকলে বিশেষ ফ্লাইটে কয়েকদিনের মধ্যে ফিরতে পারে কিছু সংখ্যক বাংলাদেশি বলে জানা গেছে। সেদেশের অভিবাসন সূত্রে জানা গেছে, মালয়েশিয়ায় জেলের সাজার মেয়াদ শেষে দেশে ফেরার অপেক্ষায় রয়েছে ১ হাজার ১ শত ৭৮ জন বাংলাদেশি। এছাড়াও এখনো জেলে আটক আছেন ৫ শত ৩২ জন। অভিবাসন বিভাগ সূত্রে জানা গেছে। বিস্তারিত...

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার