পাইকগাছায় মামলা তুলে নিতে বাদীকে হুমকি, প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা

Img

খুলনার পাইকগাছার কপিলমুনিতে মামলা তুলে নিতে বাদীকে হুমকি দিল প্রতিপক্ষরা। ঘটনার পর বাদী সায়েদ মোড়ল সহ তার পরিবারের সদস্যরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় দিন যাপন করছে বলে সায়েদ পুত্র এনামুল সাংবাদিকদের নিকট অভিযোগ করেছেন।

জানাগেছে, পাইকগাছা উপজেলার কপিলমুনি পার্শবর্তী নাছিরপুর মোড়ল পাড়ার বাসিন্দা দু'সহদর ভাই কিনু মোড়ল ও সায়েদ মোড়ল।   ডিস লাইনের সংযোগ নিয়ে তুচ্ছ ঘটনায় কিনু মোড়ল তার (ভাইবউ) ভাবি নাছিমা বেগমের উপর চড়াও হয়ে তাকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেয় এবং পরবর্তীতে বহিরাগত লোকজন এনে ঘটনার দিন ১৬ নভেম্বের সংঘবদ্ধভাবে এসে পুনরায় তুচ্ছ এ ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটিয়ে বিরোধে জড়িয়ে পড়ে এবং স্বদলবলে হামলা চালায়। ঐ সময় ধারাল অস্ত্রের আঘাতে নাছিমার মাথা কেটে গিয়ে রক্তাক্ত জখম হয়। তার অবস্থার শঙ্কা এখনো কাটেনি। তাকে উন্নত চিকিৎসা দিতে সংশ্লিষ্ট ডাক্তার পরামর্শ দিয়েছেন।

এদিকে এ ঘটনায় পাইকগাছা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা করলে বিজ্ঞ আদালত মামলাটি আমলে নেন এবং থানাকে এফ আই আর এর নির্দেশ দেন। পাইকগাছা থানা ২১ নভেম্বর মামলাটি এফ আই আর ভুক্ত করে। এরপর থেকে দু সপ্তাহ অতবাহিত হলেও পুলিশ অদ্যবধি কোন আসামীকে আটক করতে পারেনি।

বাদী সায়েদ মোড়ল এর পুত্র এনামুল জানায়, মামলা তুলে নিতে আসামী পক্ষ আমাদের কে বিভিন্ন হুমকি দিচ্ছে। আমরা জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছি।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই আল ইমরান জানান, আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে। এ ব্যাপারে পরিবার ও জীবনের নিরাপত্তায় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ চেয়েছেন সয়েদ ও তার পরিবার।

প্রতিক্রিয়া (০) মন্তব্য (০) শেয়ার (০)